আপনার স্মার্টফোন স্লো কাজ করছে? দেখুন মোবাইল ফাস্ট করার ৫ টি কার্যকর উপায়



সুপ্রিয় দর্শক আজ আমি আপনাকে দেখাবো আপনার স্লো স্মার্টফোন কিভাবে ফাস্ট করবেন একটা মোবাইল কিনার কিছুদিন পরেই দেখা যায় মোবাইলটা স্লো কাজ করতে থাকে এসময় মোবাইলটাকে কিভাবে ফাস্ট করবেন! কোন কোন কাজগুলো করলে মোবাইল ফোল স্লো হয়ে যায় এবং কিভাবে স্লো মোবাইল ফাস্ট করতে হয় এই বিষয়গুলো আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব। তাই এই আর্টিকেল টা পুরোটা পড়লে আপনি খুব সহজেই আপনার স্লো মোবাইল ফোনটা কে ফাস্ট করতে পারবেন।


মোবাইল ফোন কি কি কারনে স্লো হয় এবং কোন কোন বিষয়গুলো এড়িয়ে চললে বা কোন কোন কাজগুলো করলে আপনার স্লো মোবাইলটাকে ফাস্ট করতে পারবেন এই সকল বিষয় এখন আমি আপনাদেরকে বিস্তারিত বলে দিবো। চলুন স্টেপ বাই স্টেপ দেখে নেই।



১। স্মার্টফোন সব সময় আপডেট রাখুনঃ

একটা মোবাইল স্লো হওয়ার প্রধান কারণ হলো ফোনটা কে আপডেট না করা। যখন আপনার অপারেটিং সিস্টেমে আপডেট চলে আসবে তখন আপনার উচিত হবে অপারেটিং সিস্টেম টাকে আপডেট করা। স্মার্টফোন সব সময় আপডেটেড অপরেটিং সিস্টম (OS) ব্যবহার করা উচিত। আপনার ফোনের সেটিংস এ গিয়ে দেখবেন আপনার ফোন আপডেট আসছে কিনা যদি নতুন আপডেট এসে থাকে তাহলে আপনি আপডেট দিয়ে দিবেন। সেক্ষেত্রে আপনার স্লো মোবাইলটা পূর্বের থেকে ফাস্ট কাজ করবে।


২। ইন্টারনাল স্টোরেজ ফ্রি রাখুনঃ

আপনার মোবাইল ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজ কখনো একদম ফুল রাখবেন না। কিছুটা ফাঁকা রাখবেন! সে ক্ষেত্রে মোবাইলটা একটু ফাস্ট কাজ করবে। যখন আপনার মোবাইলের ইন্টারনাল স্টোরেজ একদম ফুল হয়ে যাবে তখন খেয়াল করবেন আপনার মোবাইলটা অনেক স্লো হয়ে যাবে। তাই সবসময় চেষ্টা করবেন যতটা সম্ভব ইন্টারনাল স্টোরেজে জায়গা ফাঁকা রাখা। এর জন্য আপনি চাইলে আলাদা কোনো ভালো ব্র্যান্ডের মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে পারেন। সেক্ষেত্রে আপনার স্লো মোবাইলটা ফাস্ট হয়ে যাবে। 


৩।‌ ফাস্ট মেমোরি কার্ড ব্যবহার করুনঃ

অনেকের ইন্টারনাল স্টোরেজ কম থাকার কারণে মেমোরি কার্ড বা মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু সস্তা ব্র্যান্ডের মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহার করার কারণে আপনাদের মোবাইলটা আরো বেশি স্লো হয়ে যায়। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই ভালো ব্র্যান্ডের ফাস্ট মেমোরি কার্ড ব্যবহার করবেন। তাহলে আপনার শখের মোবাইল স্লো হবে না। 


৪। অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ আনইনস্টল করুনঃ

একটা মোবাইলকে স্লো করার সবথেকে বড় বদঅভ্যাস হচ্ছে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস ইনস্টল করে রাখা। এমন অনেক অ্যাপস আছে যা আপনি মাসে ১ বার ব্যবহার করেন। এরকম অ্যাপ্লিকেশন ফোনে অসংখ্য ইন্সটল করে রাখছেন! এরকম অপ্রয়োজনীয় এপ্লিকেশন আপনার ফোনে ইনস্টল রেখে আপনার ফোনটা কে স্লো করা প্রশ্নই আসে না। তাই যে অ্যাপ্লিকেশনগুলো ব্যবহার করেন না বা অনেকদিন পর পর ১ বার ব্যবহার করেন, আমি রিকমেন্ড করব সেগুলো আনইন্সটল করে যখন প্রয়োজন তখন ইন্সটল দিয়ে ব্যবহার করে পুনরায় আনইন্সটল করে দিবেন। সে ক্ষেত্রে আপনার ফোন ফাস্ট থাকবে।


৫। নির্দিষ্ট সময় পর ফোন রিসেট করুনঃ

প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের মতে ৪ থেকে ৬ মাস পরপর ফোন রিসেট করা উচিত। অথচ দেখা যায় আমরা বছরের পর বছর মোবাইল ব্যবহার করি কিন্তু ফোন রিসিভ করিনা। যখন আমরা ফোনটাকে রিসেট করি তখন ফোনের সমস্ত কার্যক্রম আবার প্রথম থেকে শুরু হয়। যার ফলে আপনার মোবাইলটা পুনরায় প্রাণ ফিরে পায়। ‌চেষ্টা করবেন চার থেকে ছয় মাস পর পর অন্ততঃ একবার ফোনটাকে রিসেট করা।


এভাবে উপরের এই পাঁচটা স্টেপকে ফলো করে আপনার স্লো মোবাইলটাকে ফাস্ট করতে পারেন। আমি মনে করি উপরের এই বিষয়গুলো যদি আপনি মেনে চলেন তাহলে অবশ্যই আপনার স্লো মোবাইলটা ফাস্ট করতে পারবেন। ধন্যবাদ। 

1 Comments

  1. Sands Casino | 150% up to $1,000
    SANDITAS CASINO febcasino in New Jersey is 제왕카지노 the largest in the United States and one of 샌즈카지노 the most innovative in the entertainment industry. Read more.

    ReplyDelete
Previous Post Next Post